এইচপি ক্যাম্পের আশা ছাড়ছেন না দুর্জয়

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট
রবিবার, ০৫ জুলাই ২০২০, সকাল ৯:১২

সিনিয়র করেসপন্ডেন্টঃ করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে গত মার্চ থেকে বাংলাদেশে স্থগিত হয়ে আছে সব ধরনের ক্রিকেটীয় কার্যক্রম। যার কারণে চলতি বছরে হাই পারফরম্যান্স ইউনিটের (এইচপি) ক্যাম্পও শুরু হয়নি নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী। জুন থেকে আগস্ট পর্যন্ত আগামীর ক্রিকেটারদের নিয়ে গঠিত এইচপি স্কোয়াডের ক্যাম্প চলে। আর এই ক্যাম্পের সময়টা কার্যত এখন অতিবাহিত হয়ে যাচ্ছে।

তারপরও এইচপি ক্যাম্প এই বছর হবে। বিকল্প পদ্ধতিতে ক্যাম্প করা হবে বলে সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন এইচপি প্রোগ্রামের চেয়ারম্যান নাঈমুর রহমান দুর্জয়। করোনার পর ক্রিকেট শুরু হলে ঘরোয়া, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের পাশাপাশি চলবে বিশেষায়িত এই ক্যাম্প।

এইচপি ক্যাম্প আয়োজনে আশাবাদ জানিয়ে দুর্জয় বলেছেন, ‘এই সময়টা তো কাভার করতে হবে। তাছাড়া খেলা যদি শুরু হয় খেলার ফাঁকে ফাঁকেও আমাদের প্রোগ্রাম আমরা চালাতে পারি। একটা বিকল্প পরিকল্পনা রাখব আমরা।’

এদিকে নির্বাচকরাও ২৬ জনের এইচপি স্কোয়াড তৈরি করে রেখেছেন। যেখানে আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী বাংলাদেশ যুব দলের কয়েকজন ক্রিকেটার থাকবেন। সেপ্টেম্বরে এইচপি দলের শ্রীলঙ্কায় সফর, জানুয়ারিতে হোমে আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজ খেলার খসড়া সূচিও নাকি তৈরি ছিল।

বিসিবির এই পরিচালক বলেন, ‘এখন আসলে পরিস্থিতি তো স্বাভাবিক না। আমরা স্কোয়াড করে আমাদের যে সফটওয়্যারের প্রোগ্রামগুলো আছে, সেগুলোতে আমরা এইচপিকে এখন রাখতেছি। কারণ তো আমাদের কোচ নিয়োগ দিলেও কোচ তো আসবে না বা প্র্যাকটিস করানোর মতো পরিস্থিতি নাই। আমরা কোচ কাকে নেব, সেটা নিয়েও আলাপ-আলোচনা এগিয়েছিল। এখন সবকিছুই আপাতত স্থগিত আছে। পরিস্থিতি যখন স্বাভাবিকের দিকে যাবে তখন আমরা আবার এটা নিয়ে কাজ করব।’

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে নতুন করে চালু হয়েছিল এইচপি। সর্বশেষ হেড কোচ অস্ট্রেলিয়ান সিমন হেলমুট। তারপর আর নতুন কোচ নিয়োগ দেয়নি বিসিবি।