বিশ্বের সপ্তম বোলার হিসেবে মাইলফলক স্পর্শ করতে যাচ্ছেন ব্রড

নট আউট ডেস্ক ডেস্ক রিপোর্টার
সোমবার, ২৭ জুলাই ২০২০, দুপুর ১২:১৯

ম্যানচেষ্টার টেস্টের তৃতীয় দিন শেষে সিরিজ জয়ের দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়ে ইংল্যান্ড। সিরিজ জয় থেকে আর মাত্র ৮ উইকেট দূরে স্বাগতিকেরা। দ্বিতীয় টেস্টে স্টোকসের একক নৈপুণ্যে ইংল্যান্ড ফিরেছিলো সমতায়। তৃতীয় ও শেষ টেস্টে সেটারই পুনরাবৃত্তি করেছেন স্টুয়ার্ট ব্রড। ব্রডের অলরাউন্ডার নৈপুণ্যেই ইংলিশদের জয়টা এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র।

এখন পর্যন্ত দুই ইনিংস মিলিয়ে ৮ উইকেট শিকার করেছেন ব্রড। সেই সাথে ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা মাইলফলক স্পর্শের সামনে দাঁড়িয়ে আছেন তিনি। সাদা পোশাকে ৫০০ উইকেটের মালিক হতে আর মাত্র এক উইকেট প্রয়োজন তাঁর।

৪৯১ উইকেট নিয়ে তৃতীয় টেস্ট খেলতে নামা ব্রড এখন ৪৯৯ উইকেটের মালিক। প্রথম ইনিংসে ৩১ রানে ৬ উইকেটের পর দ্বিতীয় ইনিংসেও নিয়েছেন ২ উইকেট। দ্বিতীয় টেস্টে সিরিজে সমতা ফেরানো ম্যাচেও ৬ উইকেট নিয়েছিলেন ব্রড।

অথচ সিরিজের প্রথম টেস্টে একাদশে রাখা হয়নি এই ইংলিশ পেসারকে। ঘরের মাঠে টানা ৫১ টেস্ট পর একাদশে জায়গা না পেয়ে নিজের হতাশা আর ক্ষোভ দেখিয়েছেন প্রকাশ্যেই। অধিনায়ক জো রুটের কল্যানেই সুযোগ পেয়েছেন দ্বিতীয় টেস্টে। এতেই যেন নিজের সমস্ত রাগ ঢেলে দিলেন ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যানদের উপর। অধিনায়কের আস্থার প্রতিদানও দিচ্ছেন বেশ ভালো ভাবেই।

এছাড়া আরও একটি দারুন মাইলফলক স্পর্শ করেছেন ব্রড। প্রথম বোলার হিসেবে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রড স্পর্শ করেছেন ৫০ উইকেটের মাইলফলক। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ১১ ম্যাচে ব্রডের উইকেট সংখ্যা এখন ৫১। ১০ ম্যাচে ৪৯ উইকেট নিয়ে দুইয়ে আছেন অস্ট্রেলিয়ান পেসার প্যাট কামিন্স। ‍

টেস্ট ইতিহাসের সপ্তম বোলার হিসেবে ৫০০ উইকেটের ল্যান্ডমার্ক স্পর্শ করার অপেক্ষায় এখন ব্রড। বর্তমান সময়ে খেলা ক্রিকেটারদের মধ্যে ব্রডই দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি। ৫৮৯ উইকেট নিয়ে তার উপর আছেন কেবল স্বদেশী জেমস অ্যান্ডারসনই। সর্বোচ্চ তিন উইকেট শিকারির সবাই স্পিনার মুত্তিয়া মুরালিধরন (৮০০), শেন ওয়ার্ন (৭০৮) ও অনিল কুম্বলে (৬১৯)।

পরের তিনজন আবার পেসার জেমস অ্যান্ডারসন (৫৮৯), গ্লেন ম্যাকগ্রা (৫৬৩) ও কোর্টনি ওয়ালশ (৫১৯)। আর একটি উইকেট পেলেই এই তালিকায় চর্তুথ পেসার হিসেবে জায়গা করে নিবেন স্টুয়ার্ট  ব্রড।