এটিই আমার শেষ ম্যাচ হতে যাচ্ছে : বাটলার

নট আউট ডেস্ক
রবিবার, ০৯ আগষ্ট ২০২০, দুপুর ১:৩৪

ক'রোনা কালের ক্রিকেটে ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে মাঠে ফিরেছিলো ইংল্যান্ড। উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান জস বাটলারও সুযোগ পেয়েছিলেন ইংলিশ একাদশে। কিন্তু উইন্ডিজের সাথে পুরো সিরিজটাই ব্যর্থতার মধ্যে দিয়ে কাটিয়েছিলেন এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান।

উন্ডিজদের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে দুই ইনিংস মিলিয়ে করেছিলেন মোটে ৪৪ রান। দ্বিতীয় টেস্টেও নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি ফলাফল দুই ইনিংসে করেন ৪০ রান এবং তৃতীয় টেস্টে করেন মাত্র ৬৭ রান। অনেকেই বাটলার টেস্ট ক্যারিয়ার শেষ দেখে ফেলেছিলেন। সর্বশেষ ১০ টেস্টেই বাটলার ব্যাট হাতে এবং গ্লাভস হাতে ছিলো একেবারেই অচেনা।

পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের একাদশে সুযোগ পেয়েছিলেন আরো একবার। নিজেই বুঝে ফেলেছিলেন নিজেকে প্রমাণ করতে না পারলে ইংলিশদের সাদা জার্সিতে সুযোগ পাওয়া বড্ডই কঠিন হয়ে পড়বে। পাকিস্তানের বোলিংয়ের সামনে প্রথম ইনিংসে সুবিধা করতে পারেনি ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা। সেখান প্রথম ইনিংসে ৩৮ করে বাটলার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ফর্মে ফেরার।

দ্বিতীয় ইনিংসে ২৭৭ রানের কঠিন লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ১১৭ রান তুলতেই যখন ৫ উইকেট হারায় ইংল্যান্ড তখন জয়টা ক্রমশ আরো কঠিন হয়ে যায় ইংল্যান্ডের জন্য। কিন্তু বাটলার ও ওকসের দারুণ জুটিতে অসাধারণভাবেই ম্যাচে ফিরে আসে ইংল্যান্ড।  এ দুজনের দৃঢ়তায় ৩ উইকেটের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে জো রুটের দল। দ্বিতীয় ইনিংসে গুরুত্বপূর্ণ ৭৫ রান করেন তিনি বাটলার।

তবে এই ম্যাচে রান না পেলে ক্যারিয়ারের শেষ দেখে ফেলেছিলেন বাটলার। ম্যাচ শেষে বাটলার এমনটাই বললেন।  বাটলার বলেন, “অবশ্যই এই ভাবনা মাথায় এসেছে যে এবার রান করতে না পারলে খুব সম্ভবত এটিই আমার শেষ ম্যাচ হতে যাচ্ছে। এসব ব্যাপারই মাথায় ঘুরছিলো বারবার। তবে মাঠে নেমে চেষ্টা করেছি এই ভাবনাগুলো মাথা থেকে ফেলে দিয়ে খেলায় মনোযোগ দেওয়ার এবং পরিস্থিতি অনুযায়ী খেলার। আমি সন্তুষ্ট যে সেটি করতে পেরেছি।”

প্রথম ইনিংসে দেড়শ পার করা শান মাসুদের ক্যাচ দুইবার ফেলে দিয়েছিলেন বাটলার। নিজের এই ব্যর্থতা নিয়ে বাটলার বলেন, “ওই সুযোগগুলো যদি আমি নিতে পারতাম তাহলে আরও ঘণ্টা দুয়েক আগেই আমরা জিতে যেতাম। খুব ভালো করেই জানি, আমি ভালো কিপিং করিনি। কিছু সুযোগ হাতছাড়া করেছি। ব্যাটিংয়ে যত রানই করি না কেন, দিনশেষে এটাই বড় ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়াতো। প্রভাব ফেলতে পারতো ম্যাচের ফলাফলেও। আমাকে অবশ্যই আরও ভালো করতে হবে। ”