প্রচ্ছদ / কনওয়ের আক্ষেপের দিনে বড় জয় কিউইদের

পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে সফরকারী অস্ট্রেলিয়াকে ৫৩ রানের হারিয়ে সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেলো নিউজিল্যান্ড। আগে ব্যাট করা কিউইরা ডেভন কনওয়ের অপরাজিত ৯৯ রানের সুবাদে ১৮৪ রানের বড় পুঁজি পায়। জবাবে ১৩১ রানেই সবকটি উইকেট হারিয়ে বসে অস্ট্রেলিয়া।


হেগলি ওভালে এদিন টস জিতে আগে বল করার সিদ্ধান্ত নেয় অস্ট্রেলিয়া। চোট কাটিয়ে ফেরা কিউই ওপেনার মার্টিন গাপটিল ফিরে যান ০ রানেই। দলীয় ১১ রানের মাথায় টিম সেইফার্টের উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। অধিনায়ক কেইন উইলিয়ামসনও থিতু হতে পারেননি বেশিক্ষণ। ফিরেন ১৩ বলে ১২ রান করে। দলীয় ২০ রান পার করার আগেই ৩ উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে স্বাগতিকরা।


তবে চতুর্থ উইকেটে দলের হাল ধরেন কনওয়ে ও ফিলিপস। প্রাথমিক বিপর্যয় সামলে দু'জন মিলে গড়েন ৭৪ রানের জোট। ২০ বলে ৩০ রান করা ফিলিপসকে সাজঘরের পথ দেখান মার্কাস স্টয়নিস। পঞ্চম উইকেটে জেমস নিশামকে নিয়ে প্রায় অর্ধশতাধিক রানের জুটি গড়েন কনওয়ে। বাকিদের ছোট ছোট সংগ্রহের দিনে শুরু থেকেই কনওয়ে ব্যাট হাতে ছিলেন সাবলীল। 


একপ্রান্ত আগলে রেখে কনওয়ে ছুটছিলেন শতকের দিকেই, তবে ১ রানের আক্ষেপ নিয়ে ম্যাচ শেষ করতে হয় এই কিউই ব্যাটার কে। ৫৯ বলে ৯৯ রানে অপরাজিত থাকেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। কনওয়ের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৮৪ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড।


জবাবে অস্ট্রেলিয়ার শুরুটাও ভালো হয়নি। ইনিংসের প্রথমেই ফিরে যান অধিনায়ক ফিঞ্চ। তার দেখানো পথেই হাঁটেন ফিলিপ, ম্যাথু ওয়েডরা। দলীয় ১৯ রানে মাথায় ব্যক্তিগত ১ রানে ফিরেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েলও। আর তাতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে স্মিথ-ওয়ার্নার বিহীন অস্ট্রেলিয়া। পঞ্চম উইকেট জুটিতে বিপর্যয় সামাল দেওয়ার বৃথা চেস্টা করেন মার্কাস স্টয়নিস ও মিচেল মার্শ। 


তবে লাভ হয়নি তাতে কোন। দলীয় একশো পার করার আগেই ৮ উইকেট হারায় সফরকারীরা। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে একাই লড়ে যান মার্শ। খেলেন ৪৫ রানের ইনিংস। শেষ দিকে অ্যাস্টন অ্যাগারের ২৩ রান কেবল কমিয়েছে হারের ব্যবধানই। শেষ পর্যন্ত ১৫ বল বাকি থাকতে ১৩১ রানে অলআউট হয় অস্ট্রেলিয়া।


নিউজিল্যান্ডের পক্ষে ইশ সোধি একাই ৪ উইকেট শিকার করেন। কিপটে বোলিংয়ে ২টি করে উইকেট নেন ট্রেন্ট বোল্ট ও টিম সাউদি। 


সংক্ষিপ্ত স্কোর:

নিউজিল্যান্ড ১৮৪/৫ (২০ ওভার)
কনওয়ে ৯৯*, ফিলিপস ৩০;
ঝাই ২/৩১, স্যামস ২/৪০।

অস্ট্রেলিয়া ১৩১/১০ (১৭.৩ ওভার)
মার্শ ৪৫, অ্যাগার ২৩;
সোধি ৪/২৮, সাউদি ২/১০।


-নট আউট/টিএ 

  • ট্যাগস

এ বিভাগের আরও নিউজ

দেশের প্রয়োজনে পিএসএলকে গেইলের বিদায়

মঙ্গলবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, সন্ধ্যা ৭:২৫

নট আউট ডেস্কঃ পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) ষষ্ঠ আসরে মাত্র দুই ম্যাচ খেলেই থেকে বিদায় নিলেন ক্যারিবীয় তারকা ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল। ঘরের মাটিতে আসন্ন লঙ্কা সিরিজকে সামনে রেখে ও.ই

'৩' দিনের মাথায় পদত্যাগ করলেন চামিন্দা ভাস

মঙ্গলবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, বিকাল ৫:১৩

নট আউট ডেস্কঃ ডেভিড সাকেরের পদত্যাগের পর সাবেক বিশ্বকাপ জয়ী পেসার চামিন্দা ভাসকে পেস বোলিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দেয় শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড (এসএলসি)। তবে দায়িত্ব পাওয়ার মাত্র তিন দিনের

ভারতে বিশ্বকাপ খেলতে চায় পাকিস্তান

মঙ্গলবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, দুপুর ১২:১০

নট আউট ডেস্কঃ রাজনৈতিক দ্বন্ধে দীর্ঘদিন ভারত-পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষিক সিরিজ গড়ায় না বাইশ গজে। তাই দু'দলের ক্রিকেটীয় উত্তাপ ছড়ায় শুধুমাত্র আইসিসির বৈশ্বিক কোন টুর্নামেন্টে। এবার সেখা

পিসিএল, ২০২১

লাহোর কালান্ডারস  মূলতান সুলতানস

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, বিকাল ৪টা

পিসিএল, ২০২১

পেশোয়ার জালমী  কোটা গ্ল্যাডিয়েটরস

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, রাত ৯টা

পিসিএল, ২০২১

করাচি কিংস  মূলতান সুলতানস

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, দুপুর ৩টা

পিসিএল, ২০২১

পেশোয়ার জালমী  ইসলামাবাদ ইউনাইটেড

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, রাত ৮টা

পিসিএল, ২০২১

করাচি কিংস  লাহোর কালান্ডারস

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, রাত ৮টা

অস্ট্রেলিয়ার নিউজিল্যান্ড সফর, ২০২১

নিউজিল্যান্ড রানে জয়ী

২য় টি-টুয়েন্টি, ডুনেডিন

পিসিএল, ২০২১

পেশোয়ার জালমী উইকেটে জয়ী

৫ম ম্যাচ, করাচি

পিসিএল, ২০২১

লাহোর কালান্ডারস উইকেটে জয়ী

৪র্থ ম্যাচ, করাচি

অস্ট্রেলিয়ার নিউজিল্যান্ড সফর, ২০২১

নিউজিল্যান্ড ৫৩ রানে জয়ী

১ম টি-টুয়েন্টি, ক্রাইসচার্চ

পিসিএল, ২০২১

ইসলামাবাদ ইউনাইটেড উইকেটে জয়ী

৩য় ম্যাচ, করাচি

অস্ট্রেলিয়ার নিউজিল্যান্ড সফর, ২০২১

২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ -  ৭ মার্চ ২০২১

পিসিএল, ২০২১

২০ ফেব্রুয়ারি ২০২১ -  ২২ মার্চ ২০২১

ইংল্যান্ডের ভারত সফর, ২০২১

৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ -  ২৮ মার্চ ২০২১